আজি এ প্রভাত এ রবির ও কর কেমনে জাগিল ডাইনোসর। আর এ নানা ডাইনোসর হতে যাবো কেন , আমি সমুদ্র। অনেকে হয়তো এটাও বলতে পারেন , ‘ দাদা আর দেরি কেন ? গুপ্ত টাও লাগিয়ে নিন না …’ আর বাঙালি তো কোনো ঠিক নেই, গুপ্ত টা লাগানোর পর এটাও বলে দিতে পারেন, ‘ধন টাও লাগিয়ে নিন ‘…

গুরুদেব বলে গেছেন, ওরে ইহলোক এ এসেছিস যখন আঁচড় কেটে যা। তারপর আর কি অপারেট হয়ে গেলাম। ভাবলাম অনেক সময় নষ্ট হয়েছে , কিছু একটা করা যাক। অগত্যা ধরলাম………..”কলম”। তার মানে এই নয় যে বাংলায় আমার বিশাল জ্ঞান। কোলকাতায় থাকলে হয়তো এতক্ষনে কোনো কাকিমা এটাও জিগ্যাসা করতেন, ” কত পেয়েছো বাছা বাংলায় ! ” সে যাই হোক কাকিমা, নাম্বার কম পেলেও বাংলায় লেখার একটা আলাদা মজা আছে., ঠিক যেমন রবি বাবুর কাছেও ছিল, ঠিক তেমনি আমার ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। ভারত ডেমোক্রেটিক দেশ , তাই সবার বাক স্বাধীনতা আছে। কিস্তু না ! ধর্ম আর রাজনীতি নিয়ে লিখবোনা ঠিক করেছি। কখন যে কোন দোল গুঁতিয়ে দিয়ে চলে যাবে তার ইয়ত্বা নেই। আমি একজন একনিষ্ঠ দায়িত্ববান সমাজসেবক। দেশের এ প্রান্ত সে প্রান্ত সমাজ সেবা করে বেড়াই। আর এই ঘুরতে ঘুরতে অনেক কিছুই দেখলাম জীবনে। একদিন আবিষ্কার করলাম যে দু একটা চুল যেন সার্ফ এক্সেল এর বিজ্ঞাপন দিচ্ছে। চট করে গুরুদেবের কথা মনে পরে গেল , তাই ভাবলাম আর দেরি নয় , শুরু করা যাক। ঠাকুমার যদি ঝুলি থাকতে পারে , আমার তো তাহলে ছোটোখাটো ব্যাগ থাকবেই। ব্যাস শব্দ নিয়ে খেলা শুরু করে দিলাম। ট্রেন হলে হয়তো বলতাম , ” টক ঝাল মিষ্টি দেশ বিদেশের গল্প , পড়লে ভালো আর না পড়লে আরো ভালো।” আহা পড়েই দেখুন না।

লাক্ষাদ্বীপ – ভারতের মরিশাস

Mohun Bagan VS East Bengal Derby

লাক্ষাদ্বীপ প্যাকেজ

Close Menu